What is Google Adsense

Google Adsense :

রাত ২.০০টায় তানজির সরকার তন্ময় নামে পরিচিত একজন আমাকে ফেসবুকের ইনবক্সে প্রশ্ন করলো ভাই আপনার সাইট কি এডসেন্স পাইছে???

আমি তাকে আমার সাইটের লিংক দিলাম সে দেখল এবং এরপরে আরও ৫/৬টা প্রশ্ন করলো তার উত্তর দেয়ার জন্যই আজকের এই আর্টিকেল লেখা।আশাকরি যারা আডসেন্স নিয়ে জানতে চায় তাদের বেশিরভাগ প্রশ্নের সমাধান এখানেই পেয়ে যাবে।

আমি চিন্তা করলাম এমনভাবে আমিও অনেককে জিজ্ঞেস করেছি কিভাবে এডসেন্স পেতে হয়,আমি পাবো কিনা ইত্যাদি।

কে দেয় এই এডসেন্সঃ

সবচেয়ে বড় সার্চ ইঞ্জিন গুগল যেকিনা অন্যান্য দের চেয়ে অনেক এগিয়ে আছে বাজারে।বাজারে তার শেয়ারের পরিমান প্রায় ৮০%।বাকি ২০% যথারীতি ইয়াহু,বিং বা অন্যদের দখলে।আর যেহেতু এরা এগিয়ে আছে তাই আপনি যদি গুগলের সাথে কাজ করতে পারেন আপনিও এগিয়ে থাকবেন।গুগলে বিভিন্ন  এডভারটাইজাররা বিশাল অংকের টাকা খরচ করে থাকে যাতে করে সার্চ ইঞ্জিনে সে এগিয়ে থাকে।সেইসাথে তাদের ব্যবসায় বাড়ে এবং তারাও বাজার থেকে প্রচুর মুনাফা আয় করতে পারে।গুগল এর পলিসি অনুসারে  বিজ্ঞাপনের প্রকার ভেদে ৫০%-৮০% হারে ইনকাম গুলো ভাগ করে তারা বিভিন্ন ওয়েবসাইটে প্রকাশ করে থাকে।আপনার যদি তাই একটা ওয়েবসাইট থাকে তাহলে আপনিও পেতে পারেন তাদের সাথে কাজ করার এই সুবর্ণ সুযোগ ।আসেন তাহলে জেনে নেই কি করতে হবে আপনাকে ঃ

শর্তাবলীঃ

আপনাকে এই আডসেন্স পেতে গেলে এবং পাওয়ার পরে কিছু শর্ত মেনে কাজ করতে হবে।মনে রাখবেন আপনি যদি নিয়ম মেনে কাজ করেন তাহলে তাদের কাছ থেকে পাবেন পুরোপুরি সহায়তা।আর যদি এসবের তোয়াক্কা না করেই কাজ করেন তাহলে কি হবে আপনার তা আমি বলি দিতেছি।

আপনাকে যেকোন একটা  নিস বা টপিকের উপরে সাইট বানাতে হবে।আমার নিস হচ্ছে মেক মানি অনলাইন বা অনলাইনে আয় করার জন্য কিছু গাইড বা টিপস দেয়া আছে.

আপনার সাইটের বয়স ২-৩মাস হবে হবে ।গুগলকে বুজাতে হবে আপনি আছেন এবং কাজ করবেন নিয়মিত।যদিও আমি আমার সাইটের জন্য ৪২দিনের মাথায় এডসেন্স পেয়েছিলাম।

আপনার সাইটে ৫০-৬০টা আর্টিকেল থাকলে ভালো হবে।যদিও আমার সাইটে মাত্র ১৭টা আর্টিকেল প্রকাশ করার পরেই তাদের সাথে যোগাযোগ করেছিলাম।এবং তারা আমার এপ্লিকেশন ডিনাই করে নাই।

মান-সম্পন্ন সাইট হতে হবে।আর্টিকেল  থেকে শুরু করে সব কিছুর একটা মান ধরে কাজ করতে হবে আপনাকে।সাথে কিছু কিছু পেজ আপনাকে রাখতে হবে।আপনি চাইলে আমাদের সাইটের পেজ গুলো ফলো করতে পারেন।

১০০% কপি পেস্ট মুক্ত হতে হবে।হুম আপনি চাইলে অন্য সাইট থেকে কিছু আইডিয়া নিতে পারেন।কিন্তু হুবুহু সেই সাইট থেকে আর্টিকেল এনে আপনার সাইটে বসাতে পারবেন না।এর ফলে  গুগল আপনার সাইটকে এমন পেনাল্টি দেবে যে সারাদিন বসে সার্চ করলেও আপনার সাইট আর খুঁজে পাওয়া যাবেনা।

আপনাকে ভালো মানের একটি ডোমেইন নেম ও হোস্টিং বাছাই করতে হবে।বাজারে বিভিন্ন ধরনের কোম্পানি আছে আপনি চাইলে সেখান থেকে দেখে যেকোন একটি বেছে নিতে পারেন।আর আপনার যদি মাস্টার কার্ড না থাকে তাহলে আমাদের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন ।আমরা আপনাকে কিনে দিতে হেল্প করবো ইনশাআল্লাহ।

আপনার বয়স হতে হবে ১৮বছর।যদি নাও হয় তাহলে কি আপনি কাজ করতে পারবেন না।পারবেন তবে  সেক্ষেত্রে আপনার পরিবারের যাদের ন্যাশনাল আইডি আছে এবং ব্যাংক একাঊন্ট আছে তাদের সেই ইনফরমেশন গুলো ব্যবহার করে আপনি কাজ করতে পারেন।

আর চেস্টা করবেন এডাল্ট কিছু না নিয়ে কাজ করতে । আপনার সাইট বাংলা হলেও অসুবিধা নাই।আপনি চাইলে আমার সাইট থেকেও কিছু আইডিয়া নিয়ে তা কাজে লাগাতে পারেন।কিন্তু হুবুহু কপি-পেস্ট করবেন না।এতে করে আমার চেয়ে আপনার ক্ষতিটাই বেশি হবে।

আর চেস্টা করেন নিয়মিত আর্টিকেল লিখতে।সাথে সেগুলোর ব্যাক্লিংক করবেন।আপনার সাইটে যত বেশি ভিজিটর আসবে আপনার ইনকাম টাও কিন্তু সেইহারে হতে থাকবে।মনে রাখবেন এইক্ষেত্রে বাংলা আর্টিকেলের চেয়ে ইংরেজি আর্টিকেল নিয়ে কাজ করতে পারলে বেশি ভালো হয়।কেননা গুগোল ইংরেজি সাইটের জন্য সিপিসি বেশি দিয়ে থাকে।

ইম্প্রেশনের উপরে আসলে যে ইনকাম দেয় তা বলার মত না।তাই আপনাকে সিপিসি র দিকেই নজর রেখে কাজ করতে হবে।তাই আপনার সাইটে যত বেশি ভিজিটর আসবে আপনার আয়টাও কিন্তু বেশি হবে।সিপিসি মানে কস্ট পার ক্লিক।প্রতে এডে ক্লিক পরলে আপনি যেটা পাবেন।

১০০ডলার হলেই তারা আপনার ঠিকানায় একটা পিন ভিরিফিকেশন চিঠি পাঠাবে প্রথম বারের মত।আপনি সেই ব্যাক্তি কিনা যাচাই করার জন্য।তাই আপনার ঠিকানা দেয়ার সময় খুবই সাবধানে দিবেন যাতে সেই চিঠিটা হাতে পেতে আপনার সমস্যা না হয়।

আপনি কি পারবেন তাহলেঃ

আসলে অনলাইনে আয়ের হাজার রকম পথ আছে।আপনি চাইলে এখান থেকে যেকোন একটা বা একের অধিক নিয়ে কাজ করতে পারেন।আর আমার দেখা মতে গুগোল এডসেন্স সেইসবের মধ্যে সবচেয়ে সহজ রাস্তা।আপনি যদি অনলাইনে আয়ের জন্য কাজ করে যান,নিয়মিত সময় দেন তাহলে আপনিও পারবেন।এরজন্য সবচেয়ে ভালো হলো সোস্যাল মিডিয়ায় এক্টিভ থাকা।যারা অনলাইনে কাজ করেন তাদেরকে ফলো করা।অনেক সময়ই দেখবেন যারা প্রফেশনাল ফ্রিল্যান্সার তারা আপনাকে রেস্পন্স করতে দেরি করে।এতে করে মন খারাপ করার কিছুই নাই।তারা তাদের কাজ নিয়েই অনেক ব্যস্ত থাকে।আপনিও চেস্টা করেন আর আমাদের সাইটে নিয়মিত ভিজিট করেন হয়তো এখান থেকেই আপনি আপনার কোন পথ পেয়ে গেলেন।

আর্টিকেল আর বড় করতে চাইতেছি না।সবচেয়ে বড়কথা আপনি নিজেকে গুগোলের চেয়ে বেশি স্মার্ট  মনে করে কিছু করবেন না।এই পিসি সেই মোবাইল থেকে বসে বসে নিজে নিজে ক্লিক করবেন না।বা কাউকে কিল্ক করতে বলবেন না।গুগল কিন্তু এটা ট্রেস করতে পারলে আপনার এডসেন্স যাবে সাথে সাথে আপনার সাইটাও তার জায়গা হারাবে।আশা করি আমাদের আর্টিকেল আপনাদের কাজে লাগবে ।তারপরেও যদি কোন কিছু জানতে চান তাহলে আমাদেরকে কমেন্ট এর মাধ্যমে জিজ্ঞাসা করুন।আমরা তার উত্তর দেয়ার চেস্টা করবো।ভালো থাকবেন আর পরের আর্টিকেল পরার জন্য আবার আমাদের সাইটে আসবেন সেই অপেক্ষায়।

Rate this post

Faruk Hossain

Faruk Hossain

I am a digital marketing expert.I love to work on my site. After all, day long when I finished my office I engaged to My OutsourcingPark and really that time I enjoyed so much. Just keep in touch to get newly Outsourcing Tips.

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!